পরিপূর্ণ দল নিয়ে বিশ্বকাপে যেতে চান তামিম

জিম্বাবুয়েকে ওয়ানডে সিরিজে হোয়াইট ওয়াশ করে ওয়ার্ল্ড কাপ সুপার লিগের ৩০ পয়েন্ট আদায় করলো বাংলাদেশ। শেষ ওয়ানডেতে সেঞ্চুরি হাঁকিয়ে বড় ভূমিকা অধিনায়ক তামিম ইকবালের। তামিমের চাওয়া বিশ্বকাপে পরিপূর্ণ দল নিয়ে যাওয়া।
হাঁটুর চোটে প্রায় দুই মাসের বিশ্রামে চলে যাচ্ছেন তামিম ইকবাল। খেলেননি জিম্বাবুয়ে সফরের একমাত্র টেস্ট, খেলবেন না টি-টোয়েন্টি সিরিজে। ওয়ার্ল্ড কাপ সুপার লিগের অংশ বলে নিজেকে ম্যানেজ করে ওয়ানডে সিরিজ খেলেছেন।

প্রথম দুই ম্যাচে ব্যর্থ হলেও তৃতীয় ওয়ানডেতে তার সেঞ্চুরিতে দল নিশ্চিত করলো হোয়াইট ওয়াশ। নিজের ভালো লাগা প্রকাশ করার পাশাপাশি তামিম বলছেন বিশ্বকাপে পরিপূর্ণ দল নিয়ে যেতে চান।

প্রথম দুই ম্যাচে যথাক্রমে ০ ও ২০। গতকাল (২০ জুলাই) খেললেন ১১২ রানের ইনিংস, সেঞ্চুরির পথে বল খরচ করেছেন মাত্র ৮৭। যা তার ১৪ ওয়ানডে সেঞ্চুরির মধ্যে সবচেয়ে দ্রুততম।

ম্যাচ শেষে তামিম বলেন, ‘চ্যালেঞ্জিং না, আমার কাছে মন হয় আমি ভাল ছন্দে ছিলাম। টেস্ট ওয়ানডে যেখানেই ব্যাটিং করছিলাম কিন্তু বড় রান হচ্ছিল না। এরকম ম্যাচে অবদান রাখতে পেরেছি ভালো লাগছে।’

ওয়ার্ল্ড কাপ সুপার লিগের ১২ ম্যাচে ৮০ পয়েন্ট বাংলাদেশের। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ৩-০ ব্যবধানে জিতে তালিকায় আছে দুই নম্বরে। ২০২৩ বিশ্বকাপের আগে বাংলাদেশের বাকি আরও চারটি সিরিজ। তামিমের চাওয়া তার আগেই দল হিসেবে পূর্ণতা পাওয়া।

টাইগারদের ওয়ানডে দলপতির ভাষায়, ‘সিরিজ জেতাতে অনেক খুশি। কিন্তু দল হিসেবে আমরা আরও ভালো খেলতে পারি। বিশ্বকাপের আগে আমাদের ১২-১৩টা ম্যাচ আছে, যেগুলো অনেক গুরুত্বপূর্ণ। কারণ বিশ্বকাপে আমরা পরিপূর্ণ দল হিসেবে যেতে চাই।’

এদিকে নিজের বিশ্রাম ও ওয়ানডে সিরিজে চোট সামলে খেলা প্রসঙ্গে তামিম বলেন, ‘আমি হয়তো দেখাচ্ছিলাম না কিন্তু আমার অনেক কষ্ট হচ্ছিল। পায়ে অনেক টেপ লাগানো ছিল। ইনজুরি এমন একটা জিনিস…। আমি চালিয়ে যেতে পারবো তবে একবার বেড়ে গেলে তখন হয়তো ৬-৮ মাস মাঠের বাইরে থাকতে হবে। মনে হয়না এই ঝুঁকি নেয়ার দরকার আছে। তাই আমি যদি ৮-১০ সপ্তাহ রিহ্যাব করি তাহলে বিশ্বকাপের আগে ফিট হয়ে উঠতে পারব।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *