এসএসসি: পড়াশোনায় মনোযোগ বাড়ানোর ৬ কৌশল

করোনার প্রাদুর্ভাবের কারণে দেশে দীর্ঘদিন ধরে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় পড়াশোনা থেকে অনেকটা দূরেই থাকতে হয়েছে বেশিরভাগ শিক্ষার্থীকে। তবে বর্তমানে ভাইরাসটির আক্রান্তের হার নেমে আসায় এবং টিকাদান কর্মসূচি শুরু হওয়ার কারণে আশা করা হচ্ছে যে, শিগগিরই আবার শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা হতে পারে। বুধবার (১০ ফেব্রুয়ারি) এক অনুষ্ঠানে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার বিষয়ে বলেছেন, যখন স্বাস্থ্য ঝুঁকি কম মনে হবে, তখনই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেয়া হবে। সে লক্ষ্যে নতুন করে সিলেবাস প্রণয়ন করা হয়েছে, এসএসসির জন্য ৬০

রাতে ভাত না খেয়ে যদি রুটি খান তাহলে, আপনার অবশ্যই যা জা’না দরকার

রাতে ভাত না খেয়ে যদি রুটি খান তাহলে, আপনার অবশ্যই যা জা’না দরকার – দৈনন্দিন জীবনে রুটি আমাদের খাদ্য তালিকার অন্যতম অংশ। উত্তরপ্রদেশ, পাঞ্জাব, হরিয়ানা প্রভৃতি জায়গায় ভাতের থেকে রুটিকে বেশি প্রাধন্য দেওয়া হয়। আমরা বাঙালিরাও রাতে রুটি টাই বেশি পছন্দ করে থাকি।রাতে যদি খাবারের মেনুতে রুটি মাংস কিংবা গরম গরম রুটি তরকা হয় তো কোন কথাই নেই। খাবারের মেনু পুরো জমে যায়, এর থেকে ভালো কিছু মনে হয় না তখন। কিন্তু এই রুটি আমাদের

ডিমের খোসার এইসব গুরুত্বপূর্ণ কাজের কথা জানলে কখনই ফেলে দিবেন না!

ডিমের খোসা আমরা সকলেই ফেলে দেই। কিন্তু এই ডিমের খোসার মধ্যে যেসব গুণ লুকিয়ে আছে, তা শুনলে আপনি অবাক হবেন। ডিমের খোসা খুবই কার্যকরী জিনিস। রূপচর্চা থেকে গৃহস্থলীর নানা কাজে ডিমের খোসা ব্যবহার করা যায়। কফির স্বাদে তেঁতো ভাব কাটাতে চাইলে, ডিমের খোসা গুঁড়ো করে মিশিয়ে নিন। ডিমের সাদা অংশের সঙ্গে দুটি ডিমের খোসা ভালো করে গুঁড়ো করে মিশিয়ে নিন। এরপর এটি ১৫ মিনিট মুখে লাগিয়ে রাখুন। তারপর উষ্ণ পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। সপ্তাহে দুইবার

যে রোগে ভুগছে দেশের পাঁচ কোটি মানুষ!

থাইরয়েড হরমোনজনিত রোগীর সংখ্যা দেশে প্রায় পাঁচ কোটি। শহরের ২০ থেকে ৩০ ভাগ গর্ভবতী এ রোগে আক্রান্ত বলে ধারণা করছে বাংলাদেশ এন্ডোক্রাইন সোসাইটি (বিইএস) নামক বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের সংগঠন। গতকাল শুক্রবার বিশ্ব থাইরয়েড দিবস উপলক্ষে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির (ডিআরইউ) সাগর-রুনি মিলনায়তনে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে সংগঠনটি এ তথ্য প্রকাশ করে। বিশেষজ্ঞরা মনে করেন, জাতীয়ভাবে কোনো জরিপ না হলেও দেশে এ রোগে আক্রান্তদের সংখ্যা দিন দিন বাড়ছে। বিশেষ করে হরমোন ঘাটতিজনিত ‘হাইপোথাইরয়েডিজম’ রোগীর সংখ্যা বাড়ছে। বিইএস নেতারা

এই সময় শরীর গরম রাখতে যে খাবার খাবেন

চারদিক এখন শীতের চাদরে ডেকে গেছে। আর একটু গরমের ছোঁয়া পেতে আমরা কত কিছুই না গায়ে পড়ে থাকি। শুধু গরম কাপড় নয়, শীতের সময় শরীরের ভেতর গরম রাখতে খেতে পারেন আপেল, স্যুপ, মধু এবং বাদাম। এই সব খাবার খেলে আপনার শরীরের তাপমাত্রা থাকবে স্বাভাবিক। চলুন তবে জেনে নেয়া যাক কোন কোন খাবারে শীতকালেও শরীর গরম থাকে সে সম্পর্কে- শীতকালে স্যুপ খেলে শরীরের উষ্ণতার পাশাপাশি স্বাদ ও স্বাস্থ্য দুটোর প্রতিই নজর দেয়া যায়। বিশেষ করে তা

সম্পর্কে চির ধরেছে, জেনে নিন পাঁচটি কৌশল

কমবেশি সব দম্পতিই জীবনের কোনো না কোনো মুহূর্তে সম্পর্ক নিয়ে টানাপোড়েন, সংশয়ে ভোগেন৷ আসলে জীবনের মতোই সম্পর্ক সবসময় সরলরেখায় চলে না৷ বিভিন্ন সময়ে তাতে নানা বাঁক, ওঠাপড়া আসে৷ সে সব চোরাগলি পেরোতে পারে যে সব সম্পর্ক, তারাই শেষ পর্যন্ত টিকে যায়৷ আর সম্পর্ককে সারজল দিয়ে তাজা রাখার দায়িত্বও নিতে হয় দু’জনকে৷ দায়িত্ব মানে প্রতিদিন ঘটা করে পরস্পরের প্রতি ভালোবাসার কথা ঘোষণা করতে হবে বা একদিন অন্তর দামি দামি উপহার কিনে আনতে হবে, তা বলছি না৷

হার্ট ভালো রাখবে ডার্ক চকলেট

প্রিয়জনের রাগ ভাঙাতে চকলেটের চেয়ে ভালো উপায় আর কিছুই হতে পারে না। স্বাস্থ্যের জন্য বেশ উপকারী চকলেট। বিশেষ করে ডার্ক চকলেট। এতে নানা ধরনের পুষ্টি উপাদান রয়েছে। মূলত কোকো গাছের বীজ থেকে চকলেট তৈরি হয়। চকলেট ডে তে প্রিয়জনের কাছ থেকে চকলেট পেয়েছেন নিশ্চয়। এটি শুধু ভালোবাসার প্রকাশ নয়, আপনার প্রতি কেয়ারিংয়েরও বহিঃপ্রকাশ। চকলেট হলো পৃথিবীতে সবচেয়ে উৎকৃষ্ট অ্যান্টিঅক্সিড্যান্টের উৎস। বিভিন্ন গবেষণায় দেখা গেছে ডার্ক চকলেট হৃদপিণ্ডের রোগ হবার প্রবণতা কমিয়ে আনে এবং শরীরকে সুস্থ

লেবু চা নাকি গ্রিন টি, কোনটা বেশি স্বাস্থ্যকর?

শীতকাল হোক বা গরম, ঘুম থেকে ওঠে চায়ে চুমুক বা কাজের ফাঁকে ক্লান্তি দূর করতে চায়ে চুমুক দেওয়ার মজাই আলাদা। মার্কেটে বিভিন্ন ধরনের চা পাওয়া যায়। স্বাস্থ্য সচেতন যারা তারা অনেকেই গ্রিন টি বা সবুজ চা খান। অনেকে আবার লেবু চা খেতে বেশি পছন্দ করেন। কিন্তু কখনও কি ভেবে দেখেছেন, কোন চা বেশি স্বাস্থ্যকর? বিশেষত যারা সকালে চা পান করতে পছন্দ করেন তাদের কোন চা পান করা উচিত? আসুন জেনে নেওয়া যাক, কোন চা আপনার

নরম ও গোলাপি ঠোঁট পেতে যা করবেন

শীতকালে শুষ্ক আবহাওয়ার কারণে ঠোঁট ফাটা খুবই স্বাভাবিক ব্যাপার। আর এই ফাটা ঠোঁটে লিপস্টিক লাগালেও দেখতে ভালো দেখায় না। উল্টো মুখের সৌন্দর্য হ্রাস পায়। এই সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে আমরা অনেকেই বিভিন্ন পদ্ধতি প্রয়োগ করি, কিন্তু তারপরও কোনও সমাধান হয় না। তবে শীতকালে পানি কম খাওয়া হয়। যার ফলে পানির অভাবেও ঠোঁট শুষ্ক হয়ে যায়। তাই সুন্দর ঠোঁট পেতে সর্বপ্রথমে পর্যাপ্ত পরিমাণে পানি পান করতে হবে। এ ছাড়াও ঘরোয়া কিছু টোটকা আছে যা মেনে চললে

না’রী-পুরুষের যেসব শা’রী’রিক সমস্যায় সন্তান হয় না: ডা. উম্মুল খায়ের

একটি পরিবারে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে সেতুবন্ধন হচ্ছে সন্তান। সন্তান না থাকলে স্বামী-স্ত্রী একটি নির্দিষ্ট সময়ের পর যেমন দু:’শ্চি’ন্তাগ্রস্ত হয়ে পড়ে, তেমনি সামাজিক ভাবেও নানা ধরনের প্রশ্নের মুখোমুখি হয়। সেজন্য নিরবিচ্ছিন্ন ও হেলদি সম্পর্কের জন্য পরিবারে সন্তান কাম্য। কিন্তু নানা কারণে আমাদের সমাজে সন্তান ধারণ ক্ষমতা হারাচ্ছেন না’রী। সন্তান না হওয়ার ক্ষেত্রে পু’রুষও কম দায়ী নয়। বন্ধ্যাত্ব বলতে আমরা বুঝি যদি সন্তান প্রত্যাশী হয়ে জ’ন্মনিয়ন্ত্রন পদ্ধতি ব্যবহার না করে একবছর একই ছাদের নিচে স্বামী-স্ত্রী থাকেন কিন্তু তারপরও