টি-টোয়েন্টিতে সর্বোচ্চ ওপেনিং জুটির রেকর্ড গড়লেন নাইম-সৌম্য

দাপটের সাথে শততম টি-টোয়েন্টিতে বড় জয় পেয়েছে বাংলাদেশ। তিন টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম ম্যাচে জিম্বাবুয়েকে ৮ উইকেটে হারিয়েছে টাইগাররা। টাইগারদের এই জয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা রেখেছেন দুই ওপেনার নাইম শেখ ও সৌম্য সরকার। গড়েছেন ওপেনিং জুটির রেকর্ড। জিম্বাবুয়ের দেওয়া ১৫৩ রানের টার্গেটের জবাবে দুই ওপেনার সৌম্য সরকার ও মোহাম্মদ নাঈমের ফিফটিতে ৭ বল হাতে রেখে ২ উইকেটে ১৫৬ করে বাংলাদেশ। লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে ওপেনিং জুটিতে শতরান পার করে বাংলাদেশ। শততম টি-টোয়েন্টিতে গিয়ে গিয়ে বাংলাদেশ ওপেনিং জুটিতে

ব্যাটিংয়ের সময় নিজের সাথে কথা বলেই সফল সৌম্য

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজও জয় দিয়ে শুরু করেছে বাংলাদেশ। ম্যাচসেরা খেলোয়াড় সৌম্য সরকার জানিয়েছেন তার সাফল্যের রহস্য। রান আউট নিয়ে তার আক্ষেপও আছে। জিম্বাবুয়ের দেওয়া ১৫৩ রানের লক্ষ্যে হেসেখেলেই ম্যাচ জিতেছে বাংলাদেশ। সৌম্য অবদান রেখেছেন ব্যাট ও বল- উভয় বিভাগেই। ২ ওভার বোলিং করে ১৮ রান দিয়ে নিয়েছেন একটি উইকেট। ইনিংস উদ্বোধন করতে নেমে করেছেন ৪৫ বলে ৫০ রান। প্রায় ৪ মাস পরে খেলতে নেমে শুরুতে জড়তা লাগলেও নিজেই নিজেকে বুঝিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে

উদ্বোধনী জুটিতে পার্টনারশিপের রেকর্ড গড়লেন সৌম্য-নাঈম

খুলনায় ২০০৬ সালের ২৮ নভেম্বরে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে অভিষেক হয়েছিলো বাংলাদেশের। এরপর ৯৯টি ম্যাচ খেলে ফেললেও কখনো উদ্বোধনী জুটিতে সেঞ্চুরি দেখা পায়নি টাইগাররা। অবশেষে শততম ম্যাচে এসে সেই আক্ষেপ ঘোচালেন সৌম্য সরকার এবং নাঈম শেখ।হারারেতে তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম টি-টোয়েন্টিতে আজ ১৫৩ রানের টার্গেটে খেলতে নেমে উদ্বোধনী জুটিতে ৭৯ বলে ১০২ রানের পার্টনারশিপ গড়েন সৌম্য সরকার এবং নাঈম শেখ। যা এই ফরম্যাটে উদ্বোধনী জুটিতে সর্বোচ্চ পার্টনারশিপের রেকর্ড। টি-টোয়েন্টি সংস্করণে উদ্বোধনী জুটিতে বাংলাদেশের

নাইম-সৌম্যের ব্যাটে শততম ম্যাচ জিতে অনন্য মাইলফলকে বাংলাদেশ

টি-টোয়েন্টিতে শততম ম্যাচ বড় জয়ে রাঙাল বাংলাদেশ। জিম্বাবুয়েকে হারারেতে ৮ উইকেটে হারিয়েছে বাংলাদেশ। টস জিতে ব্যাটিং করতে নেমে সবকটি উইকেট হারিয়ে ১৫২ রান করেছিল জিম্বাবুয়ে। জবাবে নাইম ও সৌম্যের ফিফটিতে বাংলাদেশ ৭ বল আগে লক্ষ্য ছুঁয়ে ফেলে। একই সাথে ওয়ানডেতে, টেস্ট ও টি-টোয়েন্টিতে নিজেদের শততম ম্যাচগুলো জয়ের এক অনন্য মাইলফলক স্পর্শ করলো বাংলাদেশ। হারারেতে এদিন প্রায় একপেশে ম্যাচ খেলেছে বাংলাদেশ। জিম্বাবুয়ে লড়াই করে ফিরে আসার চেষ্টা চালালেও বাংলাদেশ ক্রিকেটারদের দারুণ পারফরম্যান্সে টিকেনি তাদের লড়াই। নিয়ন্ত্রিত

সে এক রূপকথার ইনিংস

সবমিলিয়ে টেস্ট ক্রিকেটে ১২১৮ রানের মালিক গিলেস্পি সেদিন ব্যাট করতে নেমেছিলেন নাইট ওয়াচম্যান হিসেবে। সেদিন ছিল তাঁর ৩১ তম জন্মদিনও। দিনের শেষ ভাগের তিন নম্বরে ব্যাট করতে পাঠানো হয়েছিল তাঁকে। এর আগে কোনো নাইট ওয়াচম্যানের সর্বোচ্চ স্কোর ছিল ১০৫। টনি ম্যান ১৯৭৭ সালে ভারতের বিপক্ষে খেলেছিলেন এই ইনিংস। অস্ট্রেলিয়ায় জন্ম নেয়া সেরা পেস বোলারদের একজন তিনি। অন্তত তাঁর টেস্ট ঝুলিতে থাকা ২৫৯ উইকেট সেই সাক্ষীই দেয়। বোলার হিসেবে দারুণ সফল। কিন্তু একবারের জন্যও কেউ তাঁকে

ফ্রান্সকে বিধ্বস্ত করে মেক্সিকোর বিজয়োল্লাস

নিজেদের ‘ডার্ক হর্স’ তকমার আবারও যথার্থতা প্রমাণ করেছে মেক্সিকো। ‘এ’ গ্রুপের ম্যাচে এবার তারা ফরাসিদের উড়িয়ে দিয়েছে ৪-১ গোলে। ম্যাচের সবগুলো গোলই হয়েছে বিরতির পর। মেক্সিকোর চার গোলদাতা হলেন-আলেক্সিস ভেগা, সেবাস্তিয়ান করদোভা, উরিয়েল আন্তুনা, এরিক আগুইরে। অলিম্পিকে ছেলেদের ফুটবল ইভেন্ট হয় মূলত অনূর্ধ্ব-২৩ দল নিয়ে; তবে দলে বেশি বয়সি তিন জনের থাকার সুযোগ আছে।

নাঈম-সৌম্যর রেকর্ড জুটিতে বাংলাদেশের দাপুটে জয়

স্বাগতিক জিম্বাবুয়ে ও সফরকারী বাংলাদেশের মধ্যকার তিন ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম ম্যাচে দাপুটে জয় পেয়েছে বাংলাদেশ। উদ্বোধনী জুটির রেকর্ড পার্টনারশিপে টাইগাররা পেয়েছে ৮ উইকেটের জয়। সৌম্য-নাঈমের রেকর্ড পার্টনারশিপে বাংলাদেশের দাপুটে জয় হারারেতে টস জিতে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভার ব্যাট করতে পারেনি জিম্বাবুয়ে। ব্যাটিং বান্ধব উইকেটে বাংলাদেশি পেসারদের ধারাল বোলিং ভুগিয়েছে স্বাগতিক ব্যাটসম্যানদের। ১৯ ওভার ব্যাট করে সিকান্দার রাজার নেতৃত্বাধীন দল অলআউট হয় ১৫২ রানে। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৪৩ রান (২২ বলের মোকাবেলায়) করেন

পেসারদের দাপটে ‘১৫২’ রানে অলআউট জিম্বাবুয়ে

হারারেতে তিন ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম ম্যাচে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে ১৫২ রান জড়ো করেছে স্বাগতিক জিম্বাবুয়ে। জিততে হলে সফরকারী বাংলাদেশকে করতে হবে ১৫৩ রান। বৃহস্পতিবার (২২ জুলাই) টস জিতে প্রথমে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন জিম্বাবুয়ের অধিনায়ক সিকান্দার রাজা। দ্বিতীয় ওভারেই দলটি উইকেট হারায়। তাদিওয়ানাশে মারুমানিকে (৭ বলে ৭) সাজঘরে ফিরিয়ে বাংলাদেশকে সাফল্য এনে দেন মুস্তাফিজুর রহমান। এরপর রেগিস চাকাভার ব্যাটে প্রতিরোধ গড়ে জিম্বাবুয়ে। আরেক ওপেনার ওয়েসলে মাধেরেভে ২৩ রান (২৩ বল) করে সাজঘরে ফিরলেও ডিওন

অস্ট্রেলিয়ার কাছে হেরে গেল আর্জেন্টিনা

টোকিও অলিম্পিকে নিজেদের উদ্বোধনী ম্যাচেই হোঁচট খেলো আর্জেন্টিনা। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে প্রথমার্ধে পিছিয়ে পড়ার পর দ্বিতীয়ার্ধেও ঘুরে দাঁড়াতে পারলো না আলবেসিলেস্তেরা। ফলে অলিম্পিকের ফুটবল ইভেন্টে দলটির যাত্রাও শুরু হলো হার দিয়ে। সাপ্পোরো দেমো স্টেডিয়ামে বৃহস্পতিবার ফুটবলের পুরুষ বিভাগের ‘সি’ গ্রুপের ম্যাচে আর্জেন্টিনাকে ২-০ গোলে হারিয়েছে অস্ট্রেলিয়া। ম্যাচের ১৯তম মিনিটে ল্যাছল্যান ওয়েলসের গোলে এগিয়ে যায় অস্ট্রেলিয়া। প্রথমার্ধের যোগ করা সময়ে দুই মিনিটের মধ্যে ওর্তেগা দুটি হলুদ কার্ড দেখলে আর্জেন্টিনার বিপদ আরও বাড়ে। ৮০তম মিনিটে মিচেল ডিউকের বাড়ানো

প্রথমার্ধে দূর্দান্ত হ্যাটটিকে এগিয়ে ব্রাজিল

২০১৬ অলিম্পিকের ফাইনাল অনুষ্ঠিত হয়েছিল রিও ডি জেনিরোর বিখ্যাত মারাকানা স্টেডিয়ামে। জার্মানির বিপক্ষে সেই ফাইনালে টাইব্রেকারে নেইমারের শেষ শটের মধ্য দিয়ে প্রথমবারের মত অলিম্পিকের স্বর্ণ পদক জিতেছিল ব্রাজিল। এবার টোকিও অলিম্পিকেও সেই স্বর্ণপদক ধরে রাখার মিশন সেলেসাওদের। সে লক্ষ্যে আজ প্রথম ম্যাচে গত আসরের রানার্সআপ জার্মানির বিপক্ষেই মাঠে নেমেছে ব্রাজিল। বাংলাদেশ সময় বিকেল সাড়ে ৫টায় শুরু হওয়া ম্যাচটিতে নিজেদের সেরা একাদশ নিয়েই নেমেছেন ব্রাজিল। রক্ষণভাগে রয়েছেন অভিজ্ঞ দানি আলভেস, মাঝমাঠে ডগলাস লুইজ আর আক্রমণভাগে আছে